• বৃহঃ. মার্চ ৪, ২০২১

অনুসন্ধানবার্তা

অজানাকে জানতে চোখ রাখুন

কলেজ ছাত্রাবাসে নববধূকে গণধর্ষণ : অভিযানে অস্ত্র উদ্ধার

Byঅনুসন্ধান বার্তা

সেপ্টে ২৬, ২০২০
0 0
Read Time:2 Minute, 54 Second

অনুসন্ধান বার্তা ডেস্ক নিউজ :

সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে এক নববধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় ছাত্রলীগের ছয় নেতাকর্মীর নাম উঠে এসেছে। অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে নগরীর শাহপরাণ থানা পুলিশ ওই ছাত্রাবাস থেকে স্বামীসহ ওই নববধূকে উদ্ধার করে। পরে তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় একটি প্রাইভেটকারযোগে স্বামীর সঙ্গে এমসি কলেজে বেড়াতে আসেন দক্ষিণ সুরমার শিববাড়ির এক নববধূ। ক্যাম্পাস থেকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মিলে স্বামীসহ ওই নববধূকে তুলে নেন পার্শ্ববর্তী কলেজ ছাত্রাবাসে। পরে তারা স্বামীকে বেঁধে মারধর করে ওই নববধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন।

গণধর্ষণে অভিযুক্তরা হলেন- এমসি কলেজের ইংরেজি বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, তার সহপাঠী মাহফুজুর রহমান মাছুম, একই কলেজের শিক্ষার্থী এম সাইফুর রহমান, অর্জুন লস্কর এবং বহিরাগত রবিউল ইসলাম ও তারেক আহমদ, রাজন আহমেদ।

এদিকে, কলেজ ছাত্রাবাসে নববধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় মধ্যরাতে ছাত্রাবাসে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। এসময় ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ছাত্রাবাসের সাইফুর রহমান নামে এক কলেজ ছাত্রলীগের নেতার কক্ষ আগ্নেয়াস্ত্রসহ কয়েকটি ধারালো অস্ত্রও উদ্ধার করা হয়েছে।

উদ্ধারকৃত অস্ত্রের মধ্যে একটি পাইপগান, চারটি রামদা এবং দু’টি লোহার পাইপ রয়েছে বলে জানিয়েছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের শাহপরাণ (রহ.) থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাইয়ুম। এ ঘটনায় অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে, ভোররাত পর্যন্ত ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। তবে তাদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
error: Content is protected !!