• বৃহঃ. মার্চ ৪, ২০২১

অনুসন্ধানবার্তা

অজানাকে জানতে চোখ রাখুন

ধুনটে মদ্যপান করে পূজা মন্ডপে হামলা চালিয়ে স্বেচ্ছাসেবক কর্মীদের মারধর

Byঅনুসন্ধান বার্তা

অক্টো ২৬, ২০২০
0 0
Read Time:3 Minute, 46 Second

ইমরান হোসেন ইমন, অনুসন্ধান বার্তা :

বগুড়ার ধুনটে মদ্যপান করে ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়নের বানিয়াজান বারোয়ারী দূর্গা মন্দিরের পূজা মন্ডপে হামলা চালিয়ে স্বেচ্ছাসেবক কর্মীদেরকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে।

এঘটনায় সোমবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে ওই মন্দির কমিটির সভাপতি শ্রী জিতেন্দ্রনাথ বাদী হয়ে একই ইউনিয়নের শিমুলবাড়ী গ্রামের হায়দার আকন্দে ছেলে সবুজ মিয়া (১৮), একই গ্রামের মজিদ আকন্দের ছেলে নাজমুল হোসেন (১৯) ও আব্দুল হামিদের ছেলে মঞ্জু মিয়ার (১৮) নাম উল্লেখ করে ধুনট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

থানা পুলিশ ও অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, গত ২৪ অক্টোবর রাতে বানিয়াজান গ্রামের সাগর ও শ্যালম মদ্যপান করে মন্দির প্রাঙ্গনে শিমুলবাড়ী গ্রামের সোহেলকে মারপিট করে। এরই জের ধরে ২৫ অক্টোবর রাতে সোহেল, তার বন্ধু সবুজ মিয়া, নাজমুল হোসেন ও মঞ্জু মিয়া সহ ১০/১২জন যুবক মদ্যপান করে বানিয়াজান মন্দির প্রাঙ্গনে সাগর ও শ্যামলকে খুঁজতে থাকে। একপর্যায়ে মন্দির প্রাঙ্গনে আবারও দুই গ্রুপের সংঘর্ষ বাধে।

এসময় বাধা দিতে গেলে সোহেল, সবুজ ও তাদের লোকজন পূজা মন্ডপের স্বেচ্ছাসেবককর্মীদের মারধর করে এবং প্রতীমা ভাংচুরের চেষ্টা করে। পরে গ্রামবাসী তাদেরকে ধাওয়া দিলে তারা পালিয়ে যায়।

মন্দির কমিটির সভাপতি জিতেন্দ্রনাথ জানান, রবিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে সবুজের নেতৃত্বে নাজমুল হেসেন ও মঞ্জু মিয়া সহ আরো কয়েকজন যুবক মদ্যপান করে অতর্কিতভাবে পূজা মন্ডপে হামলা চালায়। এসময় তারা পূজা মন্ডপের স্বেচ্ছাসেবক কর্মীদের মারধর করে এবং প্রতীমা ভাঙ্গার চেষ্টা করে।

এছাড়া তারা অকথ্য ভাষায় মা-বোনদের গালাগালি করতে থাকে। পরে গ্রামবাসী সবাই একত্রিক হয়ে তাদেরকে ধাওয়া দিলে তারা পালিয়ে যায়। তাই এঘটনায় তিন জনের নাম উল্লেখ করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে ঘটনার সংবাদ পেয়ে বিকেল সাড়ে ৪টায় বগুড়া-৫ (শেরপুর-ধুনট) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব হাবিবর রহমান, বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শেরপুর সার্কেল) গাজিউর রহমান ও ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এবিষয়ে ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, মন্দিরে হামলার কোন ঘটনা ঘটেনি। তবে মন্দির প্রাঙ্গনে বহিরাগত দুই গ্রুপের হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এবিষয়ে তদন্ত করে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
error: Content is protected !!