• মঙ্গল. মার্চ ২, ২০২১

অনুসন্ধানবার্তা

অজানাকে জানতে চোখ রাখুন

পরকীয়া প্রেমের বলি বগুড়ার কলেজ ছাত্র আরমান

Byঅনুসন্ধান বার্তা

সেপ্টে ৯, ২০২০
0 0
Read Time:3 Minute, 37 Second

বগুড়া জেলা প্রতিনিধি:
বগুড়ার কাহালু উপজেলায় আরমান হোসেন আন্না (১৯) নামে এক কলেজ ছাত্রকে খুন করে লাশ মাটিতে পুতে রাখার ঘটনার রহস্য উন্মোচন করেছে থানা পুলিশ। পরকীয়া প্রেমের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে আটক আসামীরা বুধবার (০৯ সেপ্টেম্বর) আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছে।

জানাগেছে, গত ৬ সেপ্টেম্বর রাতে কাহালু উপজেলার মুরইল ইউনিয়নের ডুমুর গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে এবং গাইবান্ধা সরকারী কৃষি কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্র আরমান হোসেন আন্নাকে খুন করে পাশ্ববর্তী খাঁ পাড়া এলাকার একটি পুকুর পাড়ে মাটিতে পুতে রাখে দূর্বত্তরা। পরদিন কাহালু থানা পুলিশ ওই কলেজ ছত্রের লাশ মাটি খুড়ে উদ্ধার করে। এঘটনায় পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে কাহালু উপজেলার ডোমরগ্রাম পূর্বপাড়া এলাকার নওশের খানের ছেলে ওবাইদুর খান (৪০) ও ক্ষেতলাল থানা এলাকার সহলাপাড়া গ্রামের আব্দুর রহমান প্রামানিকের ছেলে সুজন মিয়াকে (২২) গ্রেফতার করে।

কাহালু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়া লতিফুল অনুসন্ধান বার্তাকে জানান, জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে আসামীরা কলেজ ছাত্র হত্যার ঘটনা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। জবানবন্দিতে আসামী সুজন মিয়া জানায়, আসামী ওবাইদুর খানের স্ত্রীর সাথে নিহত আরমান হোসেন আন্নার পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ কারণে কলেজ ছাত্র আরমান হোসেন আন্নাকে হত্যার পরিকল্পনা করে আসামী ওবাইদুর খান।

পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ৪০ হাজার টাকার চুক্তিতে আসামী সুজন অপর আসামী ওবাইদুর খানের কথামত আন্নাকে গত রবিবার বাড়ীর পার্শ্বে ডেকে আনে। ওবাইদুর খান সহ অজ্ঞাতনামা আরো দুইজন মিলে আন্নাকে নেশা জাতীয় পানীয় খাওয়ায়। একপর্যায়ে আন্না অসুস্থ হয়ে ওবাইদুর খানের গোয়ালঘরে শুয়ে পড়ে।

এসময় তাৎক্ষনিকভাবে ওবাইদুর খান সহ অজ্ঞাতনামা দুইজন আসামী মিলে আরমান হোসেন আন্নাকে গলায় ফাঁস দিয়ে শ্বাসরোধ করে মৃত্যু নিশ্চিত করে। পরে সুজন মিয়া কোদাল ও অপর তিনজন মৃতদেহ সহ কবর স্থানের পার্শ্বে পুকুর পাড়ে গিয়ে মাটি খুড়ে মৃতদেহটি পুঁতে রাখে।

ওসি আরো জানান, আসামী সুজন মিয়া বিজ্ঞ আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারা মোতাবেক স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে এবং অপর আসামী ওবাইদুর খানের তিন দিনের পুলিশ রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত আছে।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
error: Content is protected !!