• বুধ. এপ্রি ২১, ২০২১

অনুসন্ধানবার্তা

অজানাকে জানতে চোখ রাখুন

বগুড়ায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী মান্নান আকন্দের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা

Byঅনুসন্ধান বার্তা

ফেব্রু ২৫, ২০২১
0 0
Read Time:5 Minute, 27 Second

স্টাফ রিপোর্টার, অনুসন্ধানবার্তা:

সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের (এসআইবিএল) ৩১ কোটি টাকা আত্মসাত সংক্রান্ত দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়েরকৃত মামলায় বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও বগুড়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী আব্দুল মান্নান আকন্দের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়রি) বগুড়ার স্পেশাল জজ আদালতে ওই মামলার চার্জ গঠনের দিন নিয়ম অনুযায়ী হাজির না থাকায় বিচারক এমরান হোসেন চৌধুরী তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন।

আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য বগুড়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ‘জগ’ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতায় অবতীর্ণ হয়েছেন আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা আব্দুল মান্নান আকন্দ।

আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে নির্বাচনে অংশ নেয়ায় তাকে কয়েক দিন দল থেকে বহিস্কারও করা হয়েছে।

বগুড়া স্পেশাল জজ আদালতে দুদকের পাবলিক প্রসিকিউর আবুল কালাম আজাদ জানান, ২০০৮ সালের ২৩ অক্টোবর থেকে পরবর্তী তিন বছরে সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের বগুড়া শাখায় তৎকালীন তিন কর্মকর্তা এবং ৬ ব্যবসায়ীসহ ৯ জন মিলে ভুয়া ঋণ হিসাব খুলে ৩১ কোটি ১৯ লাখ ৪৯ হাজার টাকা আত্মসাত করেন। ওই ঘটনায় এসআইবিএলের বগুড়া শাখার সেই সময়ের ব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ২০১১ সালে মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে মামলাটি দুদক তদন্ত করে এবং ২০১৭ সালে মোট ৯ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে।

চার্জশীটভুক্ত আসামীরা হলেন- এসআইবিএলের সাবেক ব্যবস্থাপক (বর্তমানে বরখাস্ত) রফিকুল ইসলাম, সাবেক ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট (বর্তমানে বরখাস্ত) আতিকুল কবির, সাবেক এক্সিকিউটিভ অফিসার (বর্তমানে বরখাস্ত) মাহবুবুর রহমান, ব্যবসায়ী আকতার হোসেন মামুন, জহুরুল হক মোমিন, এনামুল হক বাবু, মাকসুদুলম আলম খোকন, ফেরদৌস আলম এবং বগুড়া শহর আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শুকরা এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী আব্দুল মান্নান আকন্দ।

দুদকের পিপি আবুল কালাম আজাদ জানান, ওই মামলায় ২৪ ফেব্রুয়ারী চার্জগঠনের দিন ধার্য ছিল। নিয়ম অনুযায়ী চার্জ গঠনের দিন সকল আসামীকে আদালতে হাজির থাকাতে হয়। কিন্তু ওইদিন ৯ আসামীর মধ্যে জামিনে থাকা ৭জন এবং কারাগারে আটক জহুরুল হক মোমিন আদালতে হাজির থাকলেও আব্দুল মান্নান আকন্দের পক্ষে তার আইনজীবী বগুড়া পৌরসভা নির্বাচনের কারন দেখিয়ে সময় প্রার্থনা করে আবেদন জানালে বিচারক তা না মুঞ্জ করে চার্জগঠন শেষে পলাতক আসামী হিসেবে আব্দুল মান্নান আকন্দের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

তবে পিপি জানান, আজ বৃহস্পতিবার গ্রেফতারী পরোয়ানা থানায় গিয়েছে কিনা তা জানা নেই।

বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ুন কবির জানান, এসংক্রান্ত ওয়ারেন্টের কপি এখনও পাইনি।

তবে এবিষয়ে আব্দুল মান্নানের বক্তব্য নিতে তাকে ফোন করলেও তিনি রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

তবে বিকেল সাড়ে ৫ টায় আব্দুল মান্নান আকন্দ তার নিজস্ব ফেসবুক পেজে লিখেছেন, আমার বিরুদ্ধে অনেক ষড়যন্ত্র চলছে। গ্রেফতার সহ নানা গুজব ছড়ানো হচ্ছে। আপনারা ওসবে দিকে কান দিবেন না। ভোট দিতে যাবেন।

এবিষয়ে বগুড়ার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব আলম শাহ বলেন, কোন প্রার্থীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়না হলেও তাকে গ্রেফতারে নির্বাচন কমিশনের অনুমতি লাগবে। এখন আব্দুল মান্নানের বিষয়ে পুলিশ প্রশাসনের কেউ অনুমতি নিতে আসেন নি।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
error: Content is protected !!