• সোম. মার্চ ১, ২০২১

অনুসন্ধানবার্তা

অজানাকে জানতে চোখ রাখুন

ভাইয়ের নির্বাচনে অংশ নেয়ায় বহিস্কার হলেন ধুনটের আওয়ামী লীগ নেতা

Byঅনুসন্ধান বার্তা

জানু ১৪, ২০২১
0 0
Read Time:4 Minute, 38 Second

স্টাফ রিপোর্টার, অনুসন্ধান বার্তা :

বড় ভাইয়ের নির্বাচনে অংশ নেয়ায় বগুড়ার ধুনট পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এএফএম ফজলুল হককে বহিস্কার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে ধুনট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক টিআইএম নূরুন্নবী তারিক ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাই খোকনের স্বাক্ষরিত এক দলীয় পত্রে তাকে স্থায়ী বহিস্কার করা হয়।

আওয়ামী লীগ নেতা ফজলুল হক বগুড়া জেলা পরিষদের সদস্য এবং আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান মেয়র এজিএম বাদশাহ’র ছোট ভাই।

জানাগেছে, আগামী ৩০ জানুয়ারি ধুনট পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র এজিএম বাদশাহ্ (জগ), আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ধুনট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান টিআইএম নূরুন্নবী তারিক (নৌকা), বিএনপি মনোনীত প্রার্থী পৌর বিএনপিন যুগ্ন আহবায়ক ও সাবেক মেয়র আলিমুদ্দিন হারুন মন্ডল (ধানের শীষ) ও কমিউনিস্ট পার্টির সাহা সন্তোষ (কাস্তে)।

এদিকে ২০১৫ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে দল থেকে পদত্যাগ করে বিদ্রোহী প্রাথী হয়ে ধুনট পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিপুল ভোটে মেয়র নির্বাচিত হন ধুনট উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এজিএম বাদশাহ। তবে নির্বাচিত হওয়ার আগেই তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়।

তবে এরপর দলীয় সিদ্ধান্তে তিনি সাধারণ ক্ষমায় ২০২১ সালের পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আবারও দলীয় মনোনয়নের জন্য আবেদনের সুযোগ পান। কিন্তু মনোনয়ন পান ধুনট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান টিআইএম নরুন্নবী তারিক।

তাই আবারও তিনি বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে ধুনট পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। একারনে গত বুধবার ধুনট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আবারও তাকে স্থায়ী বহিস্কার করেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এজিএম বাদশাহ ধুনট পৌর শহরে বিক্ষোভ বিক্ষোভ মিছিল বের করে। তবে সেই মিছিলে নেতৃত্ব দেন তারই ছোট ভাই ধুনট পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক। একারনে তাকেও স্থায়ীভাবে দল থকে বহিস্কার করেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

ধুনট উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাই খোকন বলেন, ফজলুল হক ২০১৫ সালে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেয়ায় তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছিল। কিন্তু পরবর্তীতে সে পুনরায় সাধারণ ক্ষমায় প্রাথমিক সদস্য পদ ফিরে পায়। কিন্তু ২০২১ সালে ধুনট পৌরসভা নির্বাচনে ফজলুল হক আবারও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেয়ায় তাকে স্থায়ীভাবে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। এই বহিস্কারের চিঠি কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
error: Content is protected !!